Fiverr এর মাধ্যমে ঘরে বসে সহজেই আয় করুন।

সবাইকে শুভেচ্ছা, জানিয়া শুরু করলাম ইন্টারনেট এ ঘরে বসে আয় বিষয়ক আমার প্রথমলেখার কাজইন্টারনেট এ ঘরে বসে আয় বা আউটসোর্সইং এই কথাটি আজ প্রযুক্তিরকল্যাণে আমাদের তরুন প্রজন্মের মুখে মুখে আজ ঘুরছেসেই সাথে আমদের দেশেরতথা কথিতকিছু প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে  যারাইন্টারনেট এ ঘরে বসে আয়বা আউটসোর্সইংএর প্রশিক্ষণ এর মাধ্যমে লক্ষলক্ষ টাকা আয় কারার সপ্ন দেখিয়ে আমাদের তরুন সমাজের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছেমোটা অঙ্কের টাকাফলে আমাদের দেশের তরুনেরা প্রতারিত হয়ে বিদায় নিচ্ছেনপ্রযুক্তি বিষয়ে আমার জ্ঞান খুব ই কম তবুও আমার মাঝে যা আছে তা যদি সবারমাঝে ছড়িয়া দিতে পারি তবেই আমার কষ্ট সার্থক

334560_092d_6

 

যাই হোক, আজ আমি সবাই কে আমার প্রিয় এবং বিশ্বজুড়ে খুবই জনপ্রিয় একটি সাইট এর সাথে পরিচই করিয়া দেবসাইটটি হলঃ www.fiverr.com

এইসাইট টির বিশেষত্ব হচ্ছে, এখানে আপনি আপনার পণ্য বা সেবার বিজ্ঞাপন বিনাটাকায় দিতে পারবেনসেই বিজ্ঞাপন গুলোকে বলা হবে গিগআপনার গিগ যদি কারোপছন্দ হয় তা হলে তিনি $৫ এর বিনিময়ে আপনার গিগ টিকে অর্ডার করতে পারেনকারন এই সাইট এর সব কাজ ই হয় $৫ এরএই সাইট টির ট্রাফিক অত্তন্ত বেশি (প্রায় ৪০,০০০ প্রতি দিন)তাই বলা যাই না, ভাগ্য ভালো থাকলে প্রতিদিন ২-৩টি অর্দার পাওয়া কোন বিষয়ই নাআমি নিজের কথা বলতে পারিআমি প্রতিদিন ৩-৪টি অর্ডার পাই

 

কাজের বা গিগ এর ধরনঃ

একটু খেয়াল করলে আপনিসহজেই বুঝতে পারবেন কোন ধরনের গিগ আপনাকে পোস্ট করতে হবেনা না ভয় পাবারকিছু নেইএখানে রয়েছে বিভিন্ন বিভাগএই বিভাগ গুলোর যেকোনোটিতে আপনি যতোখুশি ততো গিগ প্রতিদিন জমা দিতে পারেনতবে বেশি গিগ দিলেই যে বেশি অর্ডারপাওয়া যায় কথাটি এমনও নয়আমি এখনও মাঝে মাঝে আমার ১ম গিগ থেকেও অর্ডারপাইপুরো ব্যাপারটি নির্ভর করছে আপনার গিগ এর ধরন, নিজস্বতা, আর আপনারপণ্যের চাহিদার উপরবিষয়টি আরও ভালোভাবে বললে, গিগ এর চাহিদা ও আপনারলেখার সৃজনশীলতার উপরই নির্ভর করে আপনার গিগ এর সফলতাআপনি যদি নিজেকেসৃজনশীল ভাবে উপস্থাপন করতে পারেন তবে আমার মনে হয়না যে ১ম অর্ডারটি পেতেআপনাকে খুব বেশি আপেক্ষা করতে হবেতবে, সব সময়ই যে একই ধরনের লেখা লিখেসফল হবেন তা ভাবা টাও ঠিক নইকখনই অন্যদের গিগ নকল করবেন নাযদি দেখা যাইঅর্ডার পাওয়া যাচ্ছে না তাহলে গিগ এর বিষয় পরিবর্তন করুন, লেখায় বৈচিত্র্যআনুনসফলতা আসবেইআমি পারছি আপনি কেন পারবেন না? আর এখানে টাকার অঙ্কটাও কিন্তু নেহাত কম নয়প্রতিটি গিগ সেল $৫ (৳৩৫০)যদিও সাইটটি সার্ভিসচার্জ বাবদ $১ কেটে রেখে $৪ পেমেন্ট করেএই সাইট এর রেজিস্ট্রেশন এর নিয়মঅন্যান্য সাইট এর মতই খুবই সাধারন

101320-fiverr_homepage_-_above_the_fold_-1-xlarge-1370296484-730x487

 

আমি আমার একটি গিগ এর উদাহরন দিচ্ছি যেটা একটা সময় খুবই হট গিগে পরিনত হয়াছিল

 

1. I will give you wordpress tutorial for $5. (৫ সেল)

2. I will create 10 gmail or youtube account for $5. ( ৭ সেল)

 

আপনারা আগ্রহী হলে আমার অ্যাকাউন্ট থেকে গিগ গুলো পরে আসতে পারেনআমার একাউন্ট এর লিঙ্ক হল-http://www.fiverr.com

গিগদেয়ার পর ক্রেতার কাছে আপনার গিগ এর একটি বর্ণনা দিনকীওয়ার্ড গিগসম্পর্কিত কিছু কীওয়ার্ড দিনযেমনঃ আমি আমার ১ম উদাহরন এর জন্য দিয়েছিলাম WordPress, Tutorials, E-Book, CMS, Learn, Easy. তারপর আপনি কতো দিনেকাজটি শেষ করতে পারবেন তা উল্লেখ করুনআপনি যদি আপনার নিজের কোন পণ্যএখানে সেল করতে চান তার জন্য এর পর রয়েছে এ রয়েছে শিপিং এর অপশনসবশেষেআপনার পণ্য এর এক বা একাধিক  ছবি(ই-বুক এর ছবি) আপলোড করুনতারপর ওকে দিন

 

এখানেযে ধরনের গিগগুলো বেশি সেল হয় তার মধ্যে সবার উপরে রয়েছে টিউটোরিয়ালভিত্তিক গিগএর পরই আছে প্রোগ্রামিং , ফান, সামাজিক যোগাযোগ এর গিগইত্যাদিটিউটোরিয়াল ভিত্তিক ই-বুক আপনি গুগল থেকে বা অন্য যেকোনো ফ্রীই-বুক এর সাইট থেকে ফ্রী ডাউনলোড করতে পারেনতবে আপনাকে অবশই আপনার পন্নেরমান নিশ্চিত করতে হবেএবং আপনার নির্ধারিত সময়ই এর মধ্যেই কাজ জমা দিতেহবে অথবা বায়ার কে আপনার সমস্যার কথা জানিয়া সময় চেয়ে নিতে হবেনইলেপরবর্তীতে এর অর্ডার না পাবার বা বয়ার ওরদার বাতিল করতে পারেন বা আপনাকেবাজে রেটিং দিতে পারেনবায়ের এর সাথে সকল আলোচনা অবশ্যই ঐ সাইট এর মেইলবক্স এ করতে হবেআপনার কাজটি শেষ হলে কাজটি অবশ্যই ঐ সাইট এর মাধ্যমেইহস্তান্তর করতে হবেকোন ক্রমেই বায়ের এর ই-মেইল অ্যাকাউন্ট এ পাঠানো যাবেনাআবার এখানে রয়েছে ঐ একই অ্যাকাউন্ট দিয়ে একজন বায়ার হিসাবেও কাজ করারসুবিধাআপনি এই সাইট এ কিছু টাকা জমিয়া আপনার কোন কাজ এর জন্য গিগ চাইতেপারেনআপনি আপনার গিগ গুলো ফেসবুক, টুইটার এ শেয়ার করতে পারেনআবার এইসাইটটির উইডগেট ব্যবহার করে আপনি আপনার ওয়েবসাইট এ এইসাইট এ আপনার গিগগুলোর বিজ্ঞাপন দিতে পারেনএতে আপনার গিগ এ বাড়তি কিছু ট্রাফিক আসতে পারেযা হতে পারে আপনার আয়ের একটি অন্যতম উ

 

পেমেন্টঃ অনেক বক বককরলামএবার আসি টাকা উত্তলন এর কথাইঅর্ডার পাবার সাথে সাথেই টাকা বায়ারপুরো টাকা ইসক্রো করে দায়তাই সময় মতো কাজ জমা দিলে টাকা পাবেনইকাজ জমাদেয়ার ৩দিন এর মধ্যে বায়ার আপানর কাজটি গ্রহন করবেন ও আপনাকে রেটিং দেবেএবং কাজটি গ্রহন করার টাকা আপনার অ্যাকাউন্ট এ জমা হবে এবং ১২ দিন এর মাথায়আপনার টাকা ক্লিয়ার করা হবেযা আপনি আপনার পেপাল অ্যাকাউন্ট দিয়া সাথেসাথে তুলতে পারবেনঅনেকের মতে এই একটা কারনেই অনেকেই এই সাইট এ কাজ করতেভয় পায়কারন এই সাইট এ টাকা পাবার উপায় মাত্র একটিআর তা হলো পেপাল যারকোন সাপোর্ট বাংলাদেশ এ নাই! কিন্তু আমি মনে করি না বর্তমান সময়ে এটি কোনসমস্যাএখন আমাদের দেশে অনেক সফল ফিলানস্যার আছেন যারা বিভিন্ন উপায়েপেপাল থেকে বাংলাদেশ এ টাকা আনেনতাদের কাছে এ ব্যাপারে সহযোগিতা চাইলেতারা অবশ্যই আপনাকে সাহায্য করবেনআমি অনেক মানুষকে দেখেছি যারা বিভিন্নবাংলা ফোরাম (বিডিওএসএন) এর মাধ্যমে  দেশের সফল ফিলানস্যার কাছে পেপাল থেকেটাকা আনার জন্য সাহায্যচানএবং আমি দেখেছি আমাদের দেশের সফল ফিলানস্যাররাকিভাবে তাদেরকে তাদের টাকা আনতে সাহায্য করেনতাই বলছি, টাকা যদি আপনারঅ্যাকাউন্ট এ থাকে তাহলে টাকা আনার জন্য খুব বেশি বেগ পেতে হবেনাতারপরওযদি টাকা আনতে কোন সমস্যা হয় তাহলে আমিতো আছিইতাহলে শুরু করে দিন না আজথাকেই

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *