আউটসোর্সিং এর উপর ৩০ হাজার শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ দেবে সরকার

web-developmentদেশে অনলাইনে কর্মসংস্থান এবং আউটসোর্সিংয়ে দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ৩০ হাজার শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ দেবে সরকার। তথ্য-প্রযুক্তির ক্ষেত্রে অভিজ্ঞ জনবলের সংকট মেটাতে নতুন করে উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। পাশাপাশি দেশের বাইরে কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে প্রশিক্ষিত জনবল তৈরিতেও গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।

 

এ লক্ষ্য পূরণে বিশ্বব্যাংকের সহযোগিতায় ২০ হাজার আইসিটি গ্রাজুয়েট এবং ১০ হাজার সায়েন্স গ্রাজুয়েটকে প্রশিক্ষণ দেওয়ার প্রকল্প হাতে নিয়েছে সরকার।

 

এ বিষয়ে সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে, দেশীয় ও বিশ্ব বাজারে যোগ্য ও উপযুক্ত কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে বিশেষ এ ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

 

Leveraging ICT for Growth, Employment and Governance Project এর আওতায় এ প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

 

তৃণমূলের গ্রাজুয়েটদের বিষয়টি অবহিত করতে জেলা প্রশাসকদেরও এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

 

দেশের অভ্যন্তরে কর্মসংস্থান এবং আউট সোর্সিংয়ের বিষয় ছাড়া দেশের বাইরে কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে বৃহৎ পরিসরে এটিই প্রথম উদ্যোগ।

 

বৃহস্পতিবার শেষ হওয়া তিন দিনব্যাপী জেলা প্রশাসক সম্মেলনে ডিসিদের বলা হয়েছে, যেসব জেলায় সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এবং বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ রয়েছে সেখানে তাদের বিষয়টি অবহিত করবেন।

 

দেশে এবং দেশের বাইরে যোগ্য ও উপযুক্ত কর্মসংস্থানের লক্ষ্যে আইসিটি গ্রাজুয়েট ও সায়েন্স গ্রাজুয়েটদের প্রশিক্ষণ দেওয়ার বিষয়টি মাঠ পর্যায়ে সংশ্লিষ্টদের অবহিত করার জন্য তথ্য যোগাযোগ ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় জেলা প্রশাসকদের নির্দেশ দিয়েছে।

 

এদিকে অনলাইনে আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে সারা দেশের ৬ জেলায় ‘স্বনির্ভর বাংলাদেশ’র সহায়তায় বেসিক ও অ্যাডভান্স পর্যায়ে ফ্রিল্যান্সার তৈরির লক্ষ্যে বিভিন্ন পর্যায়ের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে সরকার।

 

এ কর্মসূচির আওতায় ১৮০টি ব্যাচে ১১ হাজার ৩৬০ জনকে প্রশিক্ষণ দেবে সরকার। ইতিমধ্যে ৮৩টি ব্যাচে ছয় হাজার ১৮০ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

 

বিদেশে কর্মসংস্থান ও আউটসোর্সিংয়ের মাধ্যমে আয় বাড়ানোই কর্মসূচির প্রধান লক্ষ্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *